Aboriginal – Explore History, Language and Culture

কেন শুধু রাজবংশী না বলে কোচ রাজবংশী বলা হয়। ঐতিহাসিক দলিল।

রাজবংশী জাতির ইতিহাস : ঐতিহাসিক দলিল

By Mrinmay Barman

কামরূপ অঞ্চলের রাজবংশী জাতির ইতিহাস নিয়ে অনেক লোক কথা , কল্পনা তত্ব প্রচলিত । সেই সঙ্গে আছে অনেক প্রমাণ যোগ্য ইতিহাস , ঐতিহাসিক দলিল । সেই ইতিহাস আরো ঐতিহাসিক দলিল নিয়ে আজকের ক্ষুদ্র আলোচনা যা বিজ্ঞানমনষ্ক , ইতিহাস সচেতন পাঠক বর্গকে উৎসাহিত করবে ।

১. ১২০৬ খ্রিস্টাব্দে ইক্তিয়ার উদ্দিন বখতিয়ার খলজি কামরূপের উপর দিয়ে তিব্বত আক্রমণ করেন । ১২৬১ সালে সেই কাহিনী প্রকাশিত করেন মিনহাজ ” তবকত ই নাসিরি ” তে । এই পুস্তক অনুসারে কামরূপ অঞ্চলে শুধু কোচ মেচ ও থারু জাতির উল্লেখ পাওয়া যায় ।

২. ১৫৮৬ খ্রিস্টাব্দে ইংরেজ বণিক রাউল ফিচ এই অঞ্চলে আসেন এবং এই কামরূপ অঞ্চলকে কোচ জাতির দেশ “কোচ দেশ ” আর মহাবীর চিলা রায় কে” শুক্ল কোচ ” হিসেবে লিপিবদ্ধ করেন ।

৩. ষোড়শ শতকের শেষে এবং সপ্তদশ শতকের শুরুতে সংকলিত তারিখে ফেরেস্তা, আকবর নামা , বহারিস্থানে ঘায়বী , তজকে জাহাগীরী পুস্তকে এই অঞ্চলকে “কোচ দেশ” হিসাবে লিপিবদ্ধ করা আছে । এই অঞ্চলের অধিবাসীদের কোচ হিসেবে বর্ণিত আছে।

৪. সপ্তদশ শতকের লেখা শাহজাহান নামা , বাদসহনামা , তারিখে আসাম , আলমগীর নামা গ্রন্থে এই অঞ্চলকে কোচ জাতির কোচ দেশ হিসাবে উল্লিখিত আছে ।

৫. বুকানন হ্যামিল্টন এর ” অ্যাকাউন্ট অফ্ দা ডিস্ট্রিক্ট অফ্ রংপুর ,১৮১০ ” অনুসারে উল্লেখ করা আছে যে রাজবংশী জাতির মূল কোচ জাতি। ওই রিপোর্টে আরো বলা আছে যে সব রাজবংশী কোচ নয় কিন্তু অধিক অংশই কোচ ।

৬. ইংরেজ গবেষক বি.এইচ হজসনের ” জার্নাল অফ্ দা এসিয়াটিক সোসাইটি অফ বেঙ্গল , ১৮৪৯” মতে কোচ ও রাজবংশী একই নরগোষ্ঠি ভুক্ত ।

৭. ই. টি. ডাল্টন এর ” ডেসক্রিপটিভ এথনোলজি অফ্ বেঙ্গল ১৮৭২ ” বইয়ে উল্লেখ করেন যে রাজবংশী রা অনার্য বংশোদ্ভূত দ্রাবিড় বা বৃহৎ বড়ো নৃ গোষ্ঠীর অন্তর্গত ।

৮. এইচ . বেভারলির ” সেনসাস রিপোর্ট অফ্ বেঙ্গল ১৮৭২ ” মতে রাজবংশী নাম ভিত্তিহীন । রাজবংশী রা আসলে কোচ এবং পলিয়া দের সমগত্র।

৯. হান্টারের মতে ” স্ট্যাটিসটিকাল অ্যাকাউন্ট অফ্ দার্জিলিং , জলপাইগুড়ি অ্যান্ড কোচবিহার ,১৮৭৬ ” কোচ রা হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করে কোচ নাম ত্যাগ করে রাজবংশী হিসাবে পরিচিত ।

১০. এইচ . বি. রওনি তার গ্রন্থ ” ওয়াইল্ড ট্রাইব অফ্ ইন্ডিয়া ১৮৭২” বলেছে যে কোচ জাতির হিন্দুকৃত একটি বৃহৎ অংশ রাজবংশী হিসাবে পরিচিত ।

১১. ও .ড্যানিয়েল ” সেনসাস রিপোর্ট অফ্ ইন্ডিয়া ১৮৯১ ” উৎপত্তির দিক থেকে রাজবংশী দের মঙ্গোলিয়ান নরগোষ্ঠির উল্লেখ করেছেন ।

১২. এইচ. এস . রিজলে ( দা ট্রাইব অ্যান্ড কাস্ট অফ্ বেঙ্গল ,১৮৯১) স্পষ্ট উল্লেখ করেন যে রাজবংশী রা রাজবংশী নামের অন্তরালে কোচ মাত্র ।

১৩. ই. এ. গেইট ( সেনসাস রিপোর্ট অফ্ বেঙ্গল ১৯০১) এর মতে রাজবংশী রা আসলে কোচ ।

১৪. জর্জ আব্রাহাম গিয়ারসন এর ” লিঙ্গুইস্টিক সার্ভে অফ্ ইন্ডিয়া ১৯০৪ ” এর মতে কোচ ও বোরো উৎপত্তির দিক থেকে একই নর গোষ্ঠীর । রাজবংশী রা হিন্দুকৃতা কোচ ।

১৫. ### ও. ম্যালে ( সেনসাস রিপোর্ট অফ্ বেঙ্গল ১৯১১ ” ক্ষত্রিয় আন্দোলনের চাপে কোচ ও রাজবংশী কে দুটি পৃথক জাতি হিসাবে লিপিবদ্ধ করেন ।###

১৬. আচার্য সুনীতি কুমার চট্টোপাধ্যায় রাজবংশী দের বৃহত্তর বোরো নর গোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত করেন । কোচ এবং রাজবংশী দের একই গোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত বলে উল্লেখ করেন।

১৭. বর্তমানের রাজবংশী বিষয়ক গবেষক দেবেন্দ্র নাথ বর্মার মতে ( উপনিবেশিক বাংলায় রাজবংশী জনগোষ্ঠীর জাতি পরিচিতি প্রসঙ্গ ) রাজবংশী জাতি কোচ , রাজবংশী , পলিয়া , দেশীয় জনগোষ্ঠীর মিশ্রণ। রাজবংশী রা বৃহৎ বোরো নৃ গোষ্ঠীর অন্তর্গত।

১৮. ড. দীপক কুমার রায়ের মতে ( রাজবংশী সংস্কৃতির গোড়াসির কথা ) রাজবংশী জাতির মূল কোচ জাতি । রাজবংশী রা আসলে হিন্দু কৃত কোচ ।

১৯. ঐতিহাসিক শিবেন্দ্র নারায়ান কোচের মতে ( ” কোচ জাতির অতীত সন্ধানের খোঁজ “) কোচ আরো রাজবংশী একই । কোচ নামের সীমা সংখ্যা নেই । উত্তর পূর্ব ভারতের নানান জায়গায় তারা নানান নামে পরিচিত ।

২০. ড. সুখাবিলাস বর্মার মতে ” ভাওয়াইয়া ” রাজবংশী রা বৃহত্তর বোরো নৃ গোষ্ঠীর অন্তর্গত ।

Share..

Share on twitter
Share on email
Share on whatsapp
Share on facebook
Categories

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Posts

ভিয়েতনামের প্রাচীন হিন্দু চাম বর্মন রাজাদের ইতিহাস।

খ্রিষ্টীয় দ্বিতীয় শতকে ভিয়েতনামের পূর্ব উপকূলে যে হিন্দু রাজ্য প্রতিষ্ঠা হয়েছিল এবং পরবর্তীকালে সমৃদ্ধশালী হয়েছিল তার রাজধানী হল চম্পা (Champa)। চম্পা সম্ভবত এই রাজ্যটির একটি

Read More »

কেন তাঁরা ভাষার এক নাম নিয়ে সংবেদনশীল নয়? কেন দ্বিচারিতা? 

আজকে সাধারণ কোচ রাজবংশী কামতাপুরী মানুষেরা অধীর আগ্রহে আছে যাতে তাদের মাওয়ের ভাষা অর্থাৎ মাতৃভাষাকে সরকার স্বীকৃতি দেয়, তাদের ছেলে মেয়েরা যাতে প্রাথমিক স্তরে মাতৃভাষায়

Read More »

উত্তরবঙ্গের বুকে চরমপন্থী আন্দোলনের জন্য তৎকালীন সরকার অনেকাংশে দায়ী।

উত্তর বঙ্গের বুকে চরম পন্থী আন্দোলনের জন্য তৎকালীন সরকার অনেকাংশে দায়ী। – লিখেছেন প্রদীপ রায় উত্তর বঙ্গের বুকে সশস্ত্র সংগ্রাম কিন্তু একদিনে হঠাৎ করে জন্ম

Read More »

Koch - Rajbanshi - Kamtapuri

ভিয়েতনামের প্রাচীন হিন্দু চাম বর্মন রাজাদের ইতিহাস।

খ্রিষ্টীয় দ্বিতীয় শতকে ভিয়েতনামের পূর্ব উপকূলে যে হিন্দু রাজ্য প্রতিষ্ঠা হয়েছিল এবং পরবর্তীকালে সমৃদ্ধশালী হয়েছিল তার রাজধানী হল চম্পা (Champa)। চম্পা সম্ভবত এই রাজ্যটির একটি

Read More »

কবিতার নাম “হামার শিক্ষা” – কবি ক্ষিতীশ বর্মন

হামার শিক্ষা 📝ক্ষিতীশ বর্মন পাশ ফেল উঠিয়া গেইল ভাই চিন্তা যে আর নাই। খেলাচ্ছলে শিক্ষা দিতে শিক্ষাই যে হইল খেলা। হামার দেশী ছাওয়া গিলা হাতত

Read More »

দশভুজা চণ্ডীর প্রতি কান্তেশ্বরের স্তুতি /গোসানী মঙ্গল

কামতাপুরী সাহিত্য – গোসানী মঙ্গল [ তৃতীয় লহরী ] দুই প্রহর রাত্রি হইল অঙ্গনা ভাবিয়া। পূর্ব বিবরণ কহে পুত্র কোলে নিঞা॥ শুন বাপু কান্তনাথ চণ্ডী

Read More »

Literature & History (English)

Tour & Travel

রাসচক্র নির্মাতা আলতাফ মিঞা দের দিকে তাকানোর কেউ নেই।

আর কয়েকদিন পরেই কোচবিহারের ঐতিহাসিক এবং ঐতিহ্যবাহী রাসমেলা শুরু হতে চলেছে।   1812 সালে কোচবিহারের মহারাজা হরেন্দ্রনারায়ণ সর্বপ্রথম রাসযাত্রা চালু করেন।  1773  সালে স্বাধীন কোচবিহার রাজ্য

Read More »

গোরক্ষনাথ কূপ, বাংলাদেশের একমাত্র বেলে পাথরের কূপ ও গোরকূই মন্দির।

‘গোরক্ষনাথ কূপ ও গোরকূই মন্দির’বাংলাদেশের একমাত্র বেলে পাথরের কূপ।কথিত মতে নাথ পন্থিদের গুরু গোরক্ষনাথের জন্মস্থান এখানেই। লিখেছেন – Maroof Hussain Mehmet এটা বাংলাদেশের ঠাকুরগাঁও জেলার

Read More »

ভিয়েতনামের প্রাচীন হিন্দু চাম বর্মন রাজাদের ইতিহাস।

খ্রিষ্টীয় দ্বিতীয় শতকে ভিয়েতনামের পূর্ব উপকূলে যে হিন্দু রাজ্য প্রতিষ্ঠা হয়েছিল এবং পরবর্তীকালে সমৃদ্ধশালী হয়েছিল তার রাজধানী হল চম্পা (Champa)। চম্পা সম্ভবত এই রাজ্যটির একটি

Read More »
Author: Vivekananda Sarkar

Author: Vivekananda Sarkar

Dairy Technologist, Microbiologist
Special interest to explore History, Language and Culture। Koch-Rajbanshi-Kamtapur

Search the Business Directory