Aboriginal – Explore History, Language and Culture

বাংলা বই জাগ গান – ডঃ সুখবিলাস বর্মা ।

জাগগান ও অন্যান্য পালাগানের সাধক ও গীদাল স্বর্গীয় কেশব বর্মনকে উৎসর্গ করে এই বইখানি রচনা করেছেন মাননীয় ডঃ সুখবিলাস বর্মা মহাশয় ।

লেখকের প্রাককথনের কিছুটা অংশ তুলে ধরা হল।

জাগ’ অর্থাৎ জাগরণ-গান যে-বিশেষ উপলক্ষে উত্তর বাংলার বিস্তীর্ণ অঞ্চলের মানুষেরা গেয়ে থাকেন, সেটি স্থানীয় একটা ধর্মাচারের সঙ্গে সম্পর্কিত হলেও, সমস্ত ব্যাপারটির সঙ্গে জড়িয়ে আছে ওই বিশাল এলাকার আর্থ-সামাজিক কিছু অনুষঙ্গও। যে মদনকামপূজার সূত্রে জাগ-গানের প্রচলন, সেটি মদন বা প্রেমের দেবতার উপাসনা বলে গৃহীত হলেও, বস্তুত অতি প্রাচীন কয়েকটি ধর্মসংস্কারের সমন্বিত বিবর্তন হিসেবেই বুঝতে হবে তাকে। মদনদেবতাকে ওই অনুষ্ঠানে যে বাঁশের প্রতীকে পূজা করা হয়, এটা বিশেষ উল্লেখযােগ্য। এর কারণ ওই বাঁশপূজার মাধ্যমে আদিম বৃক্ষোপাসনা, যৌনপ্রতীক অর্চনা, অশুভ অলৌকিক শক্তিকে প্রতিরােধ করা এবং রােগব্যাধি দূর করা ইত্যাদি অনেক কিছু সংস্কারেরই সমাপতন ঘটেছে বলে মনে করা যেতে পারে। পূর্ব হিমালয়ের দক্ষিণে যে-পাহাড়ী অঞ্চল বহুশত মাইল ধরে বিস্তৃত হয়ে আছে, সেগানে অজত্র প্রজাতির বাঁশ জন্মায, যা ওইসব এলাকার অধিবাসীদের জীবিশ এবং অর্থনৈতিক-পরিপ্রেক্ষিতের সঙ্গেও ওতঃপ্রােতভাবেই জড়িয়ে আছে।


আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে গুরুত্ব না-থাকলে, প্রকৃত প্রস্তাবে কোনও ধর্মীয় বিশ্বাস বা সংস্কার কিংবা আচারই গড়ে যে উঠতে পারেনা, সেই গুরুত্বপূর্ণ কথাটিও এখানে কিন্তু অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক। উদ্ভিদবিজ্ঞানীরা যত ধরনের বা প্রজাতির বাঁশের সন্ধান পেয়েছেন, তার একটা বড় অংশই ঐ এলাকায় পাওয়া যায়। প্রায় দেড়শ বছর আগেই স্যার জোসেফ ডি. হুকার তার ‘হিমালয়ান জার্নাল : নােটস অব এ ন্যাচারালিস্ট-এর মধ্যে (১৮৪৭-১৮৫৪) পূর্ব-হিমালয়ের দক্ষিণাঞ্চলে অন্তত বারােটি প্রজাতির বাঁশের উল্লেখ করেছেন।……..

Share..

Share on twitter
Share on email
Share on whatsapp
Share on facebook
Categories

Leave a Reply

Recent Posts

উত্তরবঙ্গের বুকে চরমপন্থী আন্দোলনের জন্য তৎকালীন সরকার অনেকাংশে দায়ী।

উত্তর বঙ্গের বুকে চরম পন্থী আন্দোলনের জন্য তৎকালীন সরকার অনেকাংশে দায়ী। – লিখেছেন প্রদীপ রায় উত্তর বঙ্গের বুকে সশস্ত্র সংগ্রাম কিন্তু একদিনে হঠাৎ করে জন্ম

Read More »

গোরক্ষনাথ কূপ, বাংলাদেশের একমাত্র বেলে পাথরের কূপ ও গোরকূই মন্দির।

‘গোরক্ষনাথ কূপ ও গোরকূই মন্দির’বাংলাদেশের একমাত্র বেলে পাথরের কূপ।কথিত মতে নাথ পন্থিদের গুরু গোরক্ষনাথের জন্মস্থান এখানেই। লিখেছেন – Maroof Hussain Mehmet এটা বাংলাদেশের ঠাকুরগাঁও জেলার

Read More »

Koch - Rajbanshi - Kamtapuri

বাঁশের তৈয়ার তিনটা কাজুয়া জিনিস।

বাঁশ দিয়া মেলা জিনিসে বানা যায়়। বাঁশের ডেলি থাকি শুরু করি ভাকুয়া, চঙাই, জাকই, খলাই, কুল্লায় হয়। ঘরের পত্তিটা কাজে বাঁশ না হৈলে হয় না।

Read More »

পুকুর খনন করতে গিয়ে প্রাচীন কষ্টি পাথরের মূর্তি পাওয়া গেল কালিয়াগন্জে

উত্তর দিনাজপুর জেলার  কালিয়াগঞ্জ থানার অন্তর্গত, দিলালপুর গ্রামে আজকে একটি পুকুর খনন করতে গিয়ে প্রাচীন কষ্টি পাথরের মূর্তি পাওয়া গেছে। কালিয়াগন্জ থেকে উত্তর দিকে এই

Read More »

Literature & History (English)

Tour & Travel

ভুটানের সেরা পাঁচটি ট্রেকিং স্পট – যা আপনাকে অবশ্যই আকর্ষণ করবে

ভুটান দেশ একেবারে শ্বাসরুদ্ধকর। ভুটানের সঙ্গে একদা কোচবিহার রাজ্যের ঐতিহাসিক সম্পর্ক ছিল। কোচবিহার জলপাইগুড়ি আর আসামের সঙ্গে লাগোয়া এই ভুটান দেশ। এটি এমন সুন্দর মানুষদের

Read More »

কোচবিহারের ঐতিহ্য – সাগর দিঘি 1807

সাগর দিঘি – কোচবিহার 1807 সালে সাগর দিঘির খনন কার্য শুরু হয়। মহারাজা হরেন্দ্রনারায়ণের নির্দেশে এই দিঘির খনন কার্য সূচনা হয়। ক্যাম্বলের রিপোর্ট অনুযায়ী এই

Read More »

কোচ কামতার মহারাজা প্রাণনারায়ণের রাজত্বকালত বিভিন্ন মন্দির প্রতিষ্ঠা। 

মহারাজা প্রাণনারায়ণ (১৬৩২-১৬৬৫) মন্ত্রী: ভবনাথ কার্যী  মহারাজা প্রাণনারায়ণ ১৬৩২ খ্রীষ্টাব্দে সিংহাসনত বৈসেন। কিন্তুক রাজ্যচালনার বিচক্ষণতা না থাকাতে উমার সমায়ৎ বারেবারে কোচ  কামতা রাজ্য বিপদের সম্মুখীন হৈচিল। জ্ঞাতি গোষ্ঠীর

Read More »
Subscribe to Blog via Email

Enter your email address to subscribe to this blog and receive notifications of new posts by email.

Join 1 other subscriber.