কবিতার নাম “তোর্সা নদী” – কবি রোহিত বর্মন।


তোর্সা নদী

                                             📝লেখাইয়া: রোহিত বর্মন 
তোর্সা নদীর নাম ছিল এক সময়।
বাবা পীড়ের নাম এলাং মনত রয়।
নদীর হুইছে আজি দিশা হারার বেলা।
নদী শুখিয়া চর বেড়াইছে এলা মেলা।
নদীর চরত মানষি করে খালি রাজ ।
হামার মানষি করে খালি কামাই কাজ।
নদীক দেখিয়া বুখ ওঠে ধারাও করি ।
নদীর বুখোত নাই আজিকা নাও তরি ।
নদীর নাই বেগ, আপন মনে চলির।
নদী নাই পায় পাছিলা পাকোত ফিরির।
তোর্সা নদীর নাম শুনিয়া খাই ছিলো ,
মানষি গুলায় সগায় খাই ছিল ভয়।
হামার নদীর গর্ব নাম যে তোর্সা,
তোর্সা নদী,পুরাণ কথা মনত রয়।
বর্ষা কালত নদী বুখ ফুলিয়া ডাকে,
অন্য সময় নদী কৃষকের মন রাখে।
নদী তুই হামার ঐতিহাসিক গর্ব,
নদী তুই হামার ঐতিহাসিক বর্ণ।
নদী তুই চলেক নিজের মনের বেগে,
হামার কুচবিহারে নাম কামাই রেখে।


Facebook Comments

Leave a Reply / Comment / Feedback